Breaking

Post Top Ad

Your Ad Spot

Sunday, November 12, 2017

রূপচর্চার প্রচলিত কিছু ভুলধারণা

রূপচর্চার ক্ষেত্রেঅনেকেই অনেক ভুল ধারণা রয়েছে। এটা করা ঠিক না কিংবা প্রতিদিন এটা করবে…এ রকম হাজারো পরামর্শ। আর নিজেকে সুন্দর রাখতে আমরা নিয়মিত সেগুলো করেও থাকি। তবে প্রচলিত সেসব ভুল ধারণা আর নয়। তাই জেনে নিন এমন কিছু ভুল ধারণা যা আমরা ভালো বলেই করেথাকি।– নিয়মিত শ্যাম্পুর ব্র্যান্ড পরিবর্তন না করলে তা কাজ করে না- এটা পুরেপরি ছিক না। তবে সম্ভব হলে তিন মাস পর পর শ্যাম্পুর ব্র্যান্ড পরিবর্তন করা ভালো। কিন্তু কেউ চাইলে এক শ্যাম্পুই সব সময় ব্যবহার করতে পারেন। পরিবর্তন করে ব্যবহার না করলে তা কাজ করবে না—এ কথা সঠিক নয়।– অনেকে বলেন, একটি পাকা চুল তুললে সেই জায়গায় আরও দুটি পাকা চুল ওঠে। তবে এটা একেবারেই ভুল ধারণা। পাকা চুল তুলে ফেলার কারণে সেখানে আরো বেশি পাকা চুল উঠার সম্ভরনা নেই।– ব্রণের ওপর টুথপেস্ট লাগালে তা কমেযায়। প্রচলিত এ ধারণাটি অনেকটাই সঠিক। টুথপেস্ট ব্রণে লাগালে উপকার পাওয়া যায়।– আমরা প্রায় বলি, চকলেট ও অন্যান্য অস্বাস্থ্যকর খাবার খেলে ত্বকে ব্রণহয়। তবে এটা নির্ভর করে ব্যক্তির ওপর। কারও চকলেটে অ্যালার্জি থাকলে এমন হতে পারে। অতিরিক্ত তেলযুক্ত খাবার খেলেও ত্বকে ব্রণ হতে পারে।– রাতে ঘুমানোর আগে মুখে পেট্রোলিয়াম জেলি লাগিয়ে রাখলে বলিরেখা দূর হয়। এটি ত্বকের আর্দ্রতা ধরে রাখতে পারে। তবে সম্পূর্ণভাবে বলিরেখা দূর করতে সক্ষম নয়।– নিয়মিত নখে নেইলপলিশ ব্যবহার করলে নখ হলদে হয়ে যায়। সব সময় নেইলপলিশ লাগিয়ে রাখলে নখের রং হলদে হয়ে যেতে পারে। এ জন্য নখের যথাযথ পরিচর্চার প্রয়োজন।– নিয়মিত লিপস্টিক লাগালে ঠোঁটের রং কালচে হয়ে যায়। তবে নিম্নমানের ও মেয়াদোত্তীর্ণ হয়ে যাওয়া লিপস্টিক ব্যবহার করলে এমনটা ঘটতে পারে।– অনেক বলেন, তিন মাস অন্তর চুলের আগা না ছাঁটলে চুল লম্বা হয় না। তবে রূপবিশেষজ্ঞরা বলেন এটা ঠিক নয়। কারণ, চুল বাড়ে গোড়ার দিক থেকে আগার দিক থেকে নয়। চুলের ফেটে যাওয়া আগা ফেলার জন্যই তিন মাস পর পর চুলের আগা ছেঁটে ফেলতে হয়, চুল দ্রুত বড় হওয়ার জন্য নয়।– রাতে মাথায় তেল দিয়ে শক্ত করে বেণি করে রাখলে চুল দ্রুত লম্বা হয় এমন ধারণাও ভুল। বরং প্রতিরাতে চুল শক্ত করে বেঁধে রাখলে চুলের গোড়া নরম ও দুর্বল হয়ে যায়।– ছোটবেলায় চুল বারবার ন্যাড়া করে দিলে চুল ঘন হয়-এই ধারণা সঠিক নয়। কারণ, মানুষের মাথার ত্বকে চুলের (হেয়ার ফলিকল) সংখ্যা জন্মগতভাবে যা থাকে, তার চেয়ে কখনোই বৃদ্ধি পায় না। তাই ন্যাড়া করলেই চুল ঘন হবে, এটা ভাবা ভুল।– অনেকের ধারণা শীতকালের তুলনায় গ্রীষ্মকালে চুল দ্রুত বড় হয়। এ বিষয়ে রূপবিশেষজ্ঞ বলেন, চুল বাড়ার বিষয়টি ঋতুবৈচিত্র্যের ওপর কোনোভাবেই সম্পর্কযুক্ত নয়। কার চুলকত দ্রুত ও কতটুকু বাড়বে, তা নির্ভর করে তার চুলের বৃদ্ধি কেমন, তার ওপর।– পানি পান করলে ত্বকের শুষ্কতা দূর হয়। শুধু পানি পান করলে ত্বকের শুষ্কতা দূর করা যায় না। যারা জন্মগতভাবেই শুষ্ক ত্বকের অধিকারী তাদের প্রচুর পানি পানের সঙ্গে সঙ্গে পুষ্টিকর খাবার গ্রহণ ও নিয়মিত ময়েশ্চারাইজিং ক্রিম ব্যবহার না করলে ত্বকের শুষ্কতা দূর হবে না।– প্রায় সবারই ধারণা, রাত জাগলে চোখে কালি পড়ে। তবে রূপবিশেষজ্ঞরা বলেন এটা ঠিক। সাধারণত একটানা অনেক দিন রাতে না ঘুমালে চোখের নিচে কালি পড়ে। তবে কারও কারও আবার অনেক রাত জাগার পরও চোখে কালি পড়ে না।– সব সময় একদিকে সিঁথি করলে সেদিকের চুল পাতলা হয়ে যায়। এ জন্য সব সময় একদিকে সিঁথি না করে ঘুরিয়ে-ফিরিয়ে সিঁথি করা ভালো।

Post Top Ad

Your Ad Spot

Pages