Breaking

Post Top Ad

Your Ad Spot

Monday, November 13, 2017

পুরুষের যৌন সমস্যা ও সমাধান দেখেনিন কাজে আসবে

প্রতিটি মানুষই জন্মগতভাবে যৌবনেরঅধিকারী। জীবনের একটা নির্দিষ্টসময়ে এই যৌবন মানুষের জীবনে আসে।এই সময়টাই মানুষের জীবনে সবচেয়েমূল্যবান সময়। এই সময়ে নারী ও পুরুষেরদেহ-মনে ব্যাপক পরিবর্তন আসে। এসময়একই সাথে নারী ও পুরুষদের নানাধরনের শারীরিক প্রতিকূলতারসম্মুখীন হতে হয়। যা তাদেরস্বাভাবিক জীবনযাত্রা ব্যাহত করে।মহিলাদের পাশাপাশি পুরুষদেরওনানা ধরনের যৌন সমস্যা রয়েছে।যেমন – প্রি-ম্যাচিউর ইজাকুলেশেন(সহবাসে স্থায়িত্বের অভাব),ইরেকশন ফেইলিউর (পুরুষাঙ্গেরউত্থানে দুর্বলতা), পেনিট্রেশনফেইলিউর (যৌনাঙ্গ ছেদনে অক্ষমতা)প্রভৃতি। ডাক্তারী বিজ্ঞানমতে,পুরুষদের এসব সমস্যার জন্য যেসববিষয়কে দায়ী করা হয় সেগুলো হলো:• যার সাথে সহবাসে মিলিত হওয়াসেই মানুষটির সাথে বয়সের পার্থক্য• সহবাসকারী পার্টনারকে অপছন্দ(যেমন: দেহের ত্বক, মুখশ্রী, দেহসৌষ্ঠব প্রভৃতি)• ডায়াবেটিস• সিফিলিস• অতিরিক্ত দুশ্চিন্তা, টেনশন ওঅবসাদ• যৌনরোগ বা এইডস ভীতি• নারীর ত্রুটিপূর্ণ যৌনাঙ্গ• দেহে সেক্স হরমোনেরভারসাম্যহীনতা• প্রয়োজনীয় যৌন শিক্ষার অভাবআমাদের মধ্যে অনেকেই লজ্জায় এসববিষয়ে কাউকে কিছু না বলে নিজেরমধ্যে লুকিয়ে রাখে। এ থেকে সমস্যাআরো মারাত্মক আকার ধারণ করে।তাই এসব সমস্যা নিজের মধ্যে লুকিয়েনা রেখে বিশেষজ্ঞ ডাক্তারেরশরণাপন্ন হতে হবে। প্রয়োজনীয়চিকিৎসা ও ওষুধ সেবনের মাধ্যমে এসবসমস্যা থেকে মুক্তি পাওয়া সম্ভব।রক্তের সুগার নিয়ন্ত্রণ, ভিডিআরএল,টিপিএইচ, এইচবিএসএজি ও রক্তেরহরমোন এনালাইসিস এর মাধ্যমেএথেকে পরিত্রাণ পাওয়া যায়।এছাড়া আপনি চাইলে ঘরে বসেই এসবসমস্যা সমাধান করতে পারেন। এইপদ্ধতিকে বলা হয় হোম রেমেডি। হবেসবক্ষেত্রে হোম রেমেডি প্রযোজ্যনয়। রোগের প্রাথমিক অবস্থায় হোমরেমেডি পদ্ধতি প্রয়োগ করে রোগটিনির্মূল করা সম্ভব হয়। যেসকল পুরুষেরযৌন সক্ষমতা কম তারা নিচেরপদ্ধতিগুলো অনুসরণ করতে পারেন।রসুন:মসলা হিসেবে রসুন আমাদের সকলেরকাছেই পরিচিত। ডাক্তারী ভাষায়রসুনকে বলা হয় গরীবের পেনিসিলিন।এটি অ্যান্টিসেপ্টিক এবং immunebooster হিসাবে কাজ করে। যৌনঅক্ষমতার ক্ষেত্রে রসুন খুবই কার্যকরীভূমিকা পালন করে। বিশেষ কোনোরোগের কারণে বা দুর্ঘটনার কারণেযৌন ক্ষমতা হারিয়ে গেলে রসুনেরমাধ্যমে তা পুণরায় ফিরে পাওয়াযায়। প্রতিদিন দুই থেকে তিন কোয়ারসুন কাঁচা অবস্থায় চিবিয়ে খেলেহারানো যৌন অক্ষমতা ফিরে পাওয়াযায়। যারা খালি কাঁচা রুসন খেতেপারেন না তারা গমের আটার তৈরিরুটির সাথেও কাঁচা রসুন মিশিয়েখেতে পারেন। এতে শরীরে স্পার্মতৈরির মাত্রা বেড়ে যায় এবং সুস্থস্পার্ম তৈরিতে এটি সাহায্য করেথাকে।পেঁয়াজআমরা অনেকেই জানি পেঁয়াজ খেলেশরীরের তাপমাত্রা বৃদ্ধি পায়।সহজলভ্য এই মসলাটি কাম উত্তেজক ওকামনা বৃদ্ধিকারী হিসাবে অনেকদিনধরেই ব্যবহৃত হয়ে আসছে। তবে এরব্যবহার বিধি সম্পর্কে এখন সুস্পষ্টতেমনকিছু জানা সম্ভব হয়নি। তবেবিশেষজ্ঞদের মতে, সাদা পেঁয়াজবাটা মাখনের সাথে ভেজে মধুরসাথে মিশিয়ে খেলে উপকার পাওয়াযায়। উল্লেখ্য, এটি খাওয়ার আগে দুইথেকে আড়াই ঘন্টা পর্যন্ত কোনোকিছু খাওয়া যাবে না। এটি খেলে দ্রুতবীর্যপাত, ঘুমের মধ্যে ধাতুপতন প্রভৃতিসমস্যার সমাধান হয়। এছাড়াওপেঁয়াসের রসের সাথে কালো খোসাসহ বিউলির ডালের গুড়া সাত দিনভিজিয়ে রেখে রোদে শুকিয়ে সেটিনিয়মিত খেলে কাম-উত্তেজনা বজায়থাকে এবং শারীরিক মিলনকালীনসুদৃঢ়তা বজায় থাকে।

Post Top Ad

Your Ad Spot

Pages