Breaking

Post Top Ad

Your Ad Spot

Saturday, April 15, 2017

ইসলামের দৃষ্টিতে কিভাবে প্রেম করা জায়েয?

ইসলামের দৃষ্টিতে কিভাবে প্রেম করা জায়েয?উত্তরঃ ইসলামের দৃষ্টিতে বিবাহ করে নিজের বিবাহিতা স্ত্রীর সাথেপ্রেম করা জায়েয, বরং ছাওয়াবের কাজ। হাদীসে রয়েছে, ইবনে আব্বাস (রাঃ) থেকে বর্ণিত, রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লামবলেন, “দুজনের মাঝে বিবাহের মাধ্যমে গড়ে উঠা ভালবাসার মতো হৃদ্যতা কোথাও পাওয়া যাবে না।”এ হাদীসের মাধ্যমে স্পষ্ট বুঝে আসে কোন নারী বা পুরুষ গাইরে মাহরাম একে অপরের সাথে ভালবাসার সম্পর্ক করতে চাইলে, বিবাহ করে নিবে। এতে তাঁদের মুহাব্বতও বাড়বে, আর নাজায়েয কাজেও জড়াতে হবে না। কিন্তু গাইরে মাহরাম নারী বা পুরুষের মাঝে বিবাহ পূর্ব প্রেম-ভালবাসা সম্পূর্ণ নাজায়েয ও হারাম। সেই বিবাহ পূর্ব প্রেম-ভালবাসার প্রেক্ষিতে দেখা-সাক্ষাৎ, চিঠিপত্র আদান-প্রদান প্রেমের কথা-বার্তা বিনিময় সবই হারাম। এ নাজায়ের হাত থেকে বাঁচাতে ছেলে-মেয়েদের যথা সময়ে বিবাহের ব্যবস্থা করা অভিভাবকের কর্তব্য। এ বিষয়ে আবু হুরাইরা (রাঃ) থেকে তিরমিযীতে বর্ণিত হাদীস রয়েছে, রাসূলুল্লাহ (সাঃ) বলেন, “যখন তোমাদের (সন্তান বা অধীনস্থ) কেউ কোন (নারীর জন্য) প্রস্তাব দেয়, আর তোমরা তার দ্বীনদারী ও চরিত্রের ব্যাপারে সন্তুষ্ট হতে পার, তাহলে তাঁকে তার সাথে বিবাহ দিয়ে দাও। যদি তা না কর, তাহলে জমিনের বুকে ফিতনা ছড়িয়ে পড়বে এবং পদে পদে বিপদাপদ আসবে। (মিশকাতঃ কিতাবুন নিকাহ, ২৬৭, ২৬৮)আপনার জন্য সহায়ক এমন আরো কিছু লেখা পড়তে পারেন……….০১বৈধ ভাবে প্রেম করার উপায়। ০২.প্রেম ভালোবাসা কি মন থেকে তৈরি হয়?০৩.প্রেমিকার সাথে যৌন কর্ম করে বিবাহ করা০৪.নারী পুরুষ নির্জনে দেখা সাক্ষাৎ করা০৫.সঙ্গমের সুখ ও পবিত্র সম্পর্ক

Post Top Ad

Your Ad Spot

Pages