Breaking

Post Top Ad

Your Ad Spot

Tuesday, April 18, 2017

বীর্য বাড়ানো পাঁচ সুপার ফুড

টেস্টোস্টেরন কম, এমন পুরুষসংখ্যায় আমাদের চারপাশে কম নই। পরীক্ষা না-করানোর কারণে অনেক সময় আমরা তা ধরতেই পারি না। বা নিজেরাও নিজেদের এই গোপন ব্যাধির কথা জানি না।টেস্টোস্টেরন বা পুরুষ হরমোন কম হওয়ার একটা কারণ নিয়মিত উচ্চফ্যাট যুক্ত খাবার। সেই সঙ্গে ব্যায়ামে অনিহা। বাণিজ্যিক দুধের মতো যাতে উচ্চমাত্রায় ট্রান্স-ফ্যাট রয়েছে বা মাইক্রোওয়েভে তৈরি রান্নাও কিন্তু টেস্টোস্টেরনের বারোটা বাজায়। আর এই টেস্টোস্টেরন তৈরিতে বাধা মানেযৌন শক্তিরদফা-রফা। আমেরিকার মতো দেশেও প্রতিবছর গড়ে ৫ লক্ষ করে পুরুষের টেস্টোস্টেরন ঘাটতি ধরা পড়ে। মনে রাখবেন আপনার ভুঁড়ি যত বাড়বে, যত শরীরে মেদ জমবে, টেস্টোস্টেরন সেই অনুপাতেই কমবে। তাই টেস্টোস্টেরন বাড়াতে হলে শরীরে মেদ জমতে দেবেন না। এ জন্য আপনাকে ঘাম ঝরাতে হবে।এই ৪ জিনিস টেস্টোস্টেরন এরঘাতক১. বাণিজ্যিক দুধ,দই ও চিজ২. প্যাকেটজাত ও খাদ্যপ্রক্রিয়াকরণ করা খাবারদাবার৩. সোয়াভিত্তিক খাবার৪. মাইক্রোওয়েভে তৈরিকৃত খাবারএস্ট্রোজেনিক ও প্রোজেস্টেরন যৌগ থাকায় এই খাবারগুলো ছেলেদের যতটা সম্ভব এড়িয়ে যাওয়া উচিত। এস্ট্রোজেন বাড়লে টেস্টোস্টেরনহরমোন স্বাভাবিক ভাবেই কমবে। ক্রমে মেয়েলি গড়নে কিছু লক্ষণ প্রকাশ পাবে।যে পাঁচ খাবারে টেস্টোস্টেরন বাড়ে:১. গোটা ডিম২. গোমাংস (ঘাস খায় এমন গোরুর)৩. অ্যালমন্ডস৪. কাজুবাদাম৫. নারকেল তেলউপরে উল্লিখিত খাবার গুলো হল স্যাচুরেটেড বা সম্পৃক্ত ফ্যাটের উত্‌স, যার মধ্যে থাকে কোলেস্টেরল। যে কোলেস্টেরল থেকে আমাদের শরীরে টেস্টোস্টেরন তৈরি হয়। তা বলে বেশি বেশি সম্পৃক্ত ফ্যাট আবার না-খাওয়াই ভালো। একটা ভারসাম্য বজায় রাখতে হবে। খুব কম খেলে যেমন শরীরে টেস্টোস্টেরনের মাত্রা একদম কমে যাবে, আবার বেশিমাত্রায় হার্টের স্বাস্থ্যের পক্ষে ক্ষতিকারক।জার্নাল অফ অ্যাপলায়েড ফিজিওলজিরএকটি রিপোর্টে উল্লেখ রয়েছে, খাদ্য তালিকায় ৪০ শতাংশ ফ্যাট টেস্টোস্টেরনের মাত্রা অনেকাংশে বাড়িয়ে দেয়। সেই তুলনায় যাঁদের খাবারে ২০ শতাংশ ফ্যাট থাকে, তাঁদের টেস্টোস্টেরনের মাত্রাও খুব কম।

Post Top Ad

Your Ad Spot

Pages