Breaking

Post Top Ad

Your Ad Spot

Tuesday, April 18, 2017

প্রশ্ন : প্রেমিকার সাথে শারীরিক সম্পর্ক করার উপায় কি?

প্রশ্ন : আমি আমার গার্লফ্রেন্ডের সাথেসেক্সকরতে চাই। কিন্তু সে রাজি হচ্ছে না। এমন কোন উপায় আছে যা করলে প্রেমিকা আমার সাথেসেক্সকরতে আগ্রহী হবে?উত্তর :আমি না হয় আপনাকে প্রেমিকার সাথে সেক্স করার কলা-কৌশল বলে দিলাম। কিন্তু আপনি আমার কিছু প্রশ্নের উত্তর দিন।আপনার কাছে আমার কিছু পাল্টাপ্রশ্নহচ্ছে…….০১. আপনি নিজের ক্ষণিকের আনন্দ লাভের জন্য এবং মনের চাহিদা পূরণ করার জন্য নিজেকে জাহান্নামের আগুনে জ্বালাতেন চান কি না? আপনি যেই ধর্মের বিশ্বাসী হোন কেন ভাই, সব ধর্মেই জান্নাত –জাহান্নাম অথবা স্বর্গ-নরক আছে।০২. আপনি কি চান আপনার স্ত্রীর চরিত্র নষ্ট হোক? অথবা আপনি এমন নারীকে স্ত্রী রূপে গ্রহণ করবেন কি না যে আপনার সাথে বিবাহ সম্পর্কের পূর্বে প্রেমিকের মনোরঞ্জনের জন্য ব্যবহৃত হয়েছে?০৩. আপনি কি চান আপনার আদরের বোনটিছেলেদের সাথে সম্পর্ক করে নিজের পবিত্রতা নষ্ট করে ফেলুক?০৪. আপনি তো আজ হোক অথবা কাল হোক কোন একটি মেয়েকেবিবাহকরবেন, তখন সন্তান হিসেবে আপনারও মেয়ে হতে পারে। আপনি কি চাইবেন আপনার আদরের দুলালী তার ছেলে বন্ধুদের সাথে যৌন সম্পর্ক করে সতীত্ব হারিয়ে ফেলুল?০৫. আপনি কি এমন মায়ের সন্তান হতে চান কি না যে মাবিবাহের পূর্বেপ্রেমিকের সাথে অবৈধ পন্থায়শারীরিক সম্পর্ককরে তার পবিত্রতা নষ্ট করেছে?এই ৫ টি প্রশ্নের উত্তর যদি আপনার কাছে না হয় তাহলে আমি বলতে চাই, হে যুবক ভাই! এখন তুমি যে মেয়েটির সাথে যৌবনের তাড়নায় যে মেয়েটির পবিত্রতা নষ্ট করতে চাইতেছেন, সে মেয়েটিও কোন বাবার আদরের দুলালী, নয়নের টুকরা, ভাইয়ের মিষ্টি আদরেরবোন, আগামীতে কারোর স্ত্রীর হবে এবং কোন সন্তানের মাও হবে। আপনি কি করে তার জীবনের পবিত্রতা নষ্ট করতে চাচ্ছেন? আপনার কি বিবেক বলতে কিছু নেই? আপনি না একজন আদর্শ পুরুষ? একজন আদর্শ পুরুষের বৈশিষ্ট্য তো এরকম হতে পারেনা। আপনি হয়তো আমাকে বলবেন, আমি তো তাঁকে বিবাহ করবো। আমি আপনাকে বলবো, আপনি তাঁকে বিবাহ করবেন একথা কিভাবে নিশ্চিত করতে পারবেন? সৃষ্টিকর্তা কি আপনার নিকট ওহী নাযিল করে বলেছেন নাকি আপনি আগামী ৫০ বছর বেঁচে থাকবেন? এবং সে মেয়েটির সাথেই আপনার নিশ্চিত বিবাহ হবে? না, তা আপনি বলতে পারবেন না। তাই হে যুবক ভাই! যৌবনের উত্তেজনার বশবর্তী হয়ে নিজের এবং অপরের পবিত্রতা নষ্ট করবেন না। আপনি যেমন পবিত্র স্ত্রীর প্রত্যাশা করেন, আপনার অপর যুবক ভাইয়েও পবিত্র স্ত্রীর প্রত্যাশা করে। আপনি যাকে বিবাহ করবেন তিনি পবিত্র স্বামীর প্রত্যাশা করেন। আর এটিও প্রত্যেক নারী পুরুষের হক। আপনি একটি অপকর্মের দ্বারা দুইজন মানুষের হক নষ্ট হয়। আপনার সৃষ্টি কর্তা তার হক লঙ্ঘন করার জন্য তার সৃষ্টি জীবন মানুষকে ক্ষমা করতে পারেন, কিন্তু তার সৃষ্টি জীব মানুষের হক অপর কোনো মানুষ নষ্ট করে তাহলে তিনি তা ক্ষমা করে দেন না যতক্ষণ না হক পাওয়া দ্বার তা ক্ষমা করে দেন।হে যুবক ভাই! এখন সিদ্ধান্ত আপনার। ক্ষনিকের আনন্দের জন্য নিজেকে জাহান্নামের আগুন নিক্ষেপ করবেন নাকী পবিত্র জীবন যাপন করে নিজেকে জান্নাত লাভের উপযুক্ত করে তোলবেন।

Post Top Ad

Your Ad Spot

Pages