Breaking

Post Top Ad

Your Ad Spot

Thursday, April 20, 2017

ইসলামে ইয়াতিম অসহায়দের প্রতিমানুষের কর্তব্য

ইসলাম সব মানুষের সাথে সদাচরণের শিক্ষা দেয়।বিশেষ করে সমাজের অবহেলিত দুঃস্থ, অসহায়,ইয়াতিম এবং মজলুম মানুষের প্রতি বিত্তবানদেররয়েছে অনেক দায়িত্ব ও কর্তব্য। সব অসহায়মানুষকে দান ও সহযোগিতার প্রতি ইসলাম অধিকগুরুত্বারোপ করেছে।আল্লাহ তাআলা কুরআনুল কারিমের অনেক জায়গায়সমাজের সব অসহায় দুঃস্থ, ইয়াতিম ও মজুলমমানুষেরপ্রতি সদয় হওয়ার তথা যথাযথ দায়িত্ব কর্তব্যপালনেরজন্য নির্দেশ প্রদান করেছেন।অসহায় ইয়াতিমদের হক আদায় না করা এবংমিসকিনদেরখাবার না দেয়া লোকদেরকে অভিশাপ দিয়েছেন।আল্লাহ তাআলা বলেন, ‘তুমি কি এমন লোককেদেখেছ, যে দ্বীনকে অস্বীকার করে?সে তো ওই ব্যক্তি যে ইয়াতিমের প্রতি রূঢ়আচরণ করে তাড়িয়ে দেয় আর মিসকিনদের খাবারপ্রদানে মানুষকে নিরুৎসাহিত করে। (সুরা মাউন :আয়াত১-৩)ইয়াতিমদের অসহায়দের সম্মান না করার অর্থ হলোতাদের প্রাপ্য হক আদায় না করা এবং তাদেরপ্রয়োজনীয় ব্যয়ভার বহন না করা। তাদের দুঃখেএবং কষ্টে সহযোগিতা না করা। এ কারণে আল্লাহতাআলা ইয়াতিম, মিসকিন, দুঃস্থ, অসহায় ওমজলুমদেরপ্রতি সম্মান ও সহযোগিতার প্রতি উদ্বুদ্ধ করতেকুরআনে আয়াত নাজিল করেন বলেন, ‘কখনোযেন এরূপ না হয় যে, তোমরা ইয়অতিমদের সম্মানকরা না; আর মিসকিনদের খাদ্যদানে (অন্যকে)উৎসাহিত কর না। (সুরা ফাজর: আয়াত ১৭-১৮)যারা দুনিয়ার জীবনে ইয়াতিম, মিসকিন, দুঃস্থ,অসহায় ওবন্দিদের ওপর ইহসান করে, আল্লাহ তাআলাতাদেরকে পরকালে জান্নাত ও জান্নাতের বহুনিয়ামতপ্রদানের ঘোষণা দিয়েছেন। বিশেষ করে ইয়াতিমও মিসকিনদের সহায়তা দান জান্নাতি মানুষেরস্বভাব।আল্লাহ তাআলা বলেন, ‘তারা দুনিয়ার জীবনেখাদ্যদ্রব্যের প্রতি নিজেদের প্রয়োজন আসক্তিথাকা সত্ত্বেও মিসকিন, ইয়াতিম ও বন্দিদের আহারপ্রদান করে। (সুরা দাহর : আয়াত ৮)রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামঅসহায়মানুষকে সাহায্যের বিষয়ে কতটা উদার ছিলেন তাএহাদিস থেকে বুঝা যায়। তিনি বলেছেন, ‘তুমিতোমারমুমিন ভাইকে সাহায্য কর; চাই সে জালিম হোক আরমজলুম হোক।’সাহাবায়ে কেরাম বিশ্বনবি সাল্লাল্লাহু আলাইহিওয়াসাল্লামকে জিজ্ঞাসা কররেন, ‘জালিমকেকিভাবেসাহায্য করবো। বিশ্বনবি বললেন, ‘জালিমকে জুলমথেকে বিরত রাখাই তাকে সাহায্য করা। (বুখারি,মুসলিম ওমিশকাত)পরিশেষে…ইসলাম যেহেতু ইয়াতিম, দুঃস্থ, অসহায়, বন্দি ওমজলুমমানুষের প্রতি সহানুভূতি দেখানোর বিশেষ তাগিদদিয়েছেন, সেহেতু মুসলিম উম্মাহর উচিত দুনিয়ার সবঅসহায় মানুষকে সহযোগিতা করা, পরস্পরকেভালোবাসা।অন্তত কেউ যেন কোনো কারণে এ সবঅসহায় মানুষকে কষ্ট না দেয়। তাদের প্রতি জুলুম-অত্যাচার না করে। আল্লাহ তাআলা মানুষকেকল্যাণেরজন্যই সৃষ্টি করেছেন। কুরআনে এসেছে,‘তোমরা শ্রেষ্ঠ জাতি! তোমাদের আবির্ভাবহয়েছে মানুষের কল্যাণের জন্য।’ (সুরাআল-ইমরান: আয়াত ১১০)আল্লাহ তাআলা মুসলিম উম্মাহকে ইয়াতিম,মিসকিন, দুঃস্থ,অসহায়, মজুলম ও বন্দিদের ওপর সদয় হওয়ার তাওফিকদান করুন। তাদেরকে দান-অনুদান, সাহায্য-সহযোগিতাকরার তাওফিক দান করুন। সব অসহায়দের সহযোগিতাকরে পরকালে জান্নাতের অধিকারী হওয়ারতাওফিকদান করুন। আমিন।

Post Top Ad

Your Ad Spot

Pages