Breaking

Post Top Ad

Your Ad Spot

Friday, November 11, 2016

আবিষ্কার করুন বন্ধ লোমকূপের গোপন কাহিনী

হাত ও পায়ের তালু ছাড়া শরীরেরঅন্যান্য অংশে সবারই ত্বকের নিচেলোমকূপে এক ধরনের গ্রন্থি থাকে।গ্রন্থি থেকে ‘সেবাম’ নামে একধরনের রস নিঃসৃত হয়। ত্বকে‘প্রোপাইনি ব্যাকটেরিয়াম একনি’নামে এক ধরনের ব্যাকটেরিয়াথাকে যা গ্রন্থি হতে নিঃসৃত‘সেবাম’কে খাদ্য হিসেবে গ্রহণকরে। লোমকূপ গুলো আকারে অনেকছোট থাকে সাধারণত যা খালিচোখে দেখা যায় না। প্রশ্ন জাগতেপারে পোরের কার্যকারিতাসম্বন্ধে। ত্বকের ন্যাচারাল তেল এইপোরের মাধ্যমে বের হয়ে ত্বককেময়েশচারাইজ করে তোলে। তাই এইপোরগুলো কেমিকেল বা তেলদ্বারা অতিরিক্ত ময়লা করে রাখাযাবে না। বন্ধ লোমকূপ স্কিনের একধরনের অস্বাভাবিকতা। ফলেআমাদের মুখে ব্ল্যাকহেডস, ব্রণ আক্রমণকরে।কী কী কারনে লোমকূপ বন্ধ হয়েযেতে পারেঃপ্রথমত – ত্বকের গ্রন্থির অস্বাভাবিককার্যকারিতার জন্য এমনটি হতেপারে। সেবাসিস গ্ল্যান্ড অনেক সময়অতিরিক্ত সেবাম এবং অন্যান্য তেলউৎপন্ন করে। লোমকূপের লোমগ্রন্থিথেকে নিঃসৃত অতিরিক্ত তেল এবংতরল লোমকূপগুলো বন্ধ করে দেয়।দ্বিতীয়ত – দিনের পর দিন পরিবেশথেকে আসা ধূলো ময়লা আমাদেরত্বকে এক ময়লার আবরন তৈরি করে আরএই কারণেই অনেক সময় লোমকূপ বন্ধ হয়েযায়।তৃতীয়ত – ৩০ দিন দিন পর পর আমাদেরদেহে নতুন কোষ জন্মায়। তখন যদিপুরানো মৃত কোষ গুলো পরিষ্কার করানা হয় তাহলে এগুলো ত্বকের ওপর জমেলোমগ্রন্থি বন্ধ করে দেয়।বন্ধ লোমকূপের কারণে ত্বকের কিছুসমস্যাঃব্ল্যাকহেডস্ বা হোয়েটহেডস হলোব্রণের প্রাথমিক পর্যায়।ব্ল্যাকহেডসের মুখ ব্রণের মুখের চেয়েবেশি প্রশস্ত থাকে। অধিক সময় ধরেমুখের লোমকূপ গুলো থেকে বের হওয়াঅতিরিক্ত তেলের সাথে ধূলো-ময়লাযোগ হয়ে সেই লোমকূপ গুলোকে বন্ধকরে দেয়। এভাবেই তৈরি হয় ব্ল্যাকহেডস্। এন্ড্রোজেন হরমোনেরপ্রভাবে লোমের গোড়াতেউপস্থিত ব্যাকটেরিয়া সেবামথেকে ফ্যাটি এসিড তৈরি করে।এসিডের কারণে লোমেকূপেরগোড়ায় মানে সেবাসিস গ্লান্ডেআর স্কিনের হেয়ার ফলিকলেপ্রদাহের সৃষ্টি হয় এবং লোমেরকেরাটিন জমা হতে থাকে। যাপরবর্তীতে রূপান্তরিত হয় ব্রণে।ক্লগড পোরস পরিষ্কার করার উপায়ঃ০১. স্টিম দিয়ে পোর পরিষ্কার করুনঃপ্রথমে ফেসওয়াশ দিয়ে মুখ পরিষ্কারকরুন যেন কোন ধুলো বা ময়লা নাথাকে। মুখে, চোখে যদি মেক-আপথাকে সেটাও মেক-আপ রিমুভারদিয়ে তুলে ফেলুন। এবার মুখেকয়েকবার উষ্ণ পানির ছিটা দিন এতেকরে মেক-আপ রিমুভার এর অংশবিশেষ থাকলে সেটাও চলে যাবে।এরপর চাইলে হালকা কোন ক্লিনজার-ও ব্যবহার করতে পারেন। এখন স্টিমনেয়ার পালা। একটি বড় গামলাতেধোঁয়া ওঠা গরম পানি নিন, ইচ্ছাকরলে এই পানির মধ্যে গ্রিন টি বাঅন্য কোন হার্ব মিশিয়ে নিতেপারেন যেটার এক্সট্রাক্ট আপনারত্বককে করে তুলবে লাবণ্যময়ী। টিট্রি অয়েল পেলে সেটাও পানিতেমিশাতে পারেন, কারণ এটা ব্রণসারানোর জন্য উপকারী। এখন গামলাথেকে ১ হাত উঁচুতে আপনার মুখটারাখুন তারপর তোয়ালে দিয়েগামলা সহ মুখটা ঢেকে ১০ মিনিটএভাবে থাকুন। এতে করে আপনারমুখের পোর খুলে যাবে আর সহজেইপোরে থাকা ময়লা আপনি পরিষ্কারকরে ফেলতে পারবেন। ময়লাপরিষ্কার করার পর বরফ দিয়ে মুখ ঘষেনিন তাহলে পরিস্কার খোলা পোরআবার বন্ধ হয়ে যাবে।

Post Top Ad

Your Ad Spot

Pages